মাঝি রে

পরানের ভেতর থাইক্যা সে বাহির হইয়া আসে

ইশারায় ঠারে ঠারে আমায় ডাকে
কতা কয় আমার লগে। 
কয়, “চল উজান পানে অচিন দেশোত যাইগা,
ভাটির দেশোত বুকে লইয়া আর কী করবি?
নতুন শাড়ির লাহান, 
চাঁন্দের আলো দিয়া কুয়াশা মুড়ি সে দেশ।”

চক্ষে মদীর নেশা তার 
বক্ষে মন্দিরা বাজে আমার

আমি কই, “ যামু ক্যান, নিজের দেশ থুইয়া,
সবুজের ভেতর থাইক্যা মমতা উইঠ্যা আসে
মায়া পইরা গ্যাছে বড়
আমি যামু না
আর ক’টা দিন পর মাঘি পুন্নিমা
বেবাক জীবনডা ভইরা দেখি নাই সে রূপ”

শিশ দিয়া যখন পক্ষি ডাকে
আতর গোলাপ চন্দনের ঘিরান আসে নাকে
তখন অবেলায় সন্ধ্যা নামে
সেই আলোতে
সাদা কাপড় পিন্দা
নদীতে যাইয়া দেখি 
মাঝি চইলা গ্যাছে নাও লইয়া 
পইরা আছি আমি ফাঁকা খাচা হইয়া।

types: 
Poem